ত্বকের যত্নে রসুনের উপকারিতা

রসুনের গুণের শেষ নেই। স্বাস্থ্য রক্ষায় এর ভূমিকাও অনেক। প্রতিবেলায় খাবারের সাথে ২ কোয়া রসুন দিতে পারে অনেক রোগের সমাধান।শুধু রোগ নিরাময়ে নয়, রূপচর্চায়ও রসুনের অবদান অনন্য।

ব্রণ দূর : রসুনের গন্ধটা তীব্র। তাইখাওয়া ও ত্বকেব্যবহারেরক্ষেত্রেঅনেকেই অপছন্দ করেনএটিকে।কিন্তু রূপচর্চার ক্ষেত্রেও তা অত্যন্ত কার্যকরভাবে ব্যবহার করা সম্ভব৷

করণীয় : রসুনের রস ব্রণের লাল ও ফোলাভাব কমিয়ে দিতে পারে খুব কমসময়ে। যেদিন সকালে ঘুম থেকে উঠেই দেখবেন গালে বা কপালে বেশ বড়োসড়ো একটি ব্রণ দেখা যাচ্ছে, সেদিন এক কোয়া রসুনের খোসা ছাড়িয়ে চেপে রসটা বের বরে ব্রণর উপর লাগিয়ে দিন৷ ৫-১০মিনিট পর ঠাণ্ডা জলে মুখটা ধুয়ে ফেলুন৷দিনে দুই-তিনবার একইভাবেলাগালে দেখবেন যে লাল ও ফোলাভাব অনেকটাই কমে গিয়েছে৷ অনেক সময় রসুনের রস জ্বলতে পারে। সেক্ষেত্রে রসুনের রসের সাথে একটুখানি মধু মিশিয়ে নিতে পারেন। এতে জ্বলুনি কমবে।



ওপেন পোরস থেকে মুক্তি : অনেকের ত্বকের কোষ গহ্বর বড় হয়ে যায়। একে ওপেন পোরস বলে। যাদের মুখে ওপেন পোরস আছে, তাদেরও খুব সমস্যা হয় কারণ ছিদ্রগুলির মধ্যে ধুলো-ময়লা, সিবেসিয়াস গ্ল্যান্ড নিঃসৃত তেল ইত্যাদি জমে থাকে।ফলে বাড়ে ব্রণের সমস্যা৷ এ পোরসের সমস্যা কমাতে একটা ছোট আকারের রসুনেরসব কোয়া এবং এক টুকরো টোমেটো একসঙ্গে পিষে একটা পেস্ট বা মিশ্রণ তৈরি করে নিন। এবার পেস্টটি মুখে লাগিয়ে রাখুন ১০মিনিটের মত৷ তারপর ধুয়ে ফেলুন ভালো করে৷ এতে আপনার ত্বক প্রাকৃতিকভাবেই উজ্জ্বল হয়ে উঠবে৷

স্ট্রেস মার্কস হবে দূর : গর্ভবতীকালীন পেটে স্ট্রেস মার্ক দেখা দেয়। তাছাড়া একটু মোটা মানুষের এ সমস্যা বেশি চোখে পড়ে। স্ট্রেস মার্কস সহজে যায় না। তবে অপেক্ষাকৃত হালকা করে দিতে পারে রসুন৷

করণীয় : এক কোয়া রসুন বেটে তার থেকে রস বের করে নিন৷ এবার প্রতিদিন ব্যবহারের জন্য আপনি যে প্রাকৃতিক তেলটি গায়ে মাখেন, তার মধ্যে রসুন নিঃসৃত এই রস মিশিয়ে তেলটা গরম করে নিন৷ বোতলে ভরে রেখে ব্যবহার করুন৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

নোয়াখালীর লক্ষ্মীপুরে খোঁজ মিলল দেশ সেরা ক্ষুদে এক লেগ স্পিনারের।

Sat Jul 13 , 2019